দোলে জমুক, ঠান্ডা-ই চুমুক

দোল মানেই ঠান্ডাই তে চুমুক। বাজার চলতি নানা রকমের ঠান্ডাই মিক্স থাকলেও, বাড়িতে সেটা বানানোর মজাই আলাদা। তাছাড়া রোদে রং খেলার সময় শরীর ঠান্ডা তো রাখবেই ঠান্ডাই, জোগাবে বাড়তি এনার্জি। দেখে নিন কীভাবে বানাবেনয

ফ্যাট যুক্ত দুধ, চিনি, কাজুবাদাম, আমন্ড, পোস্ত, পেস্তা মৌরি, কালো বা সাদা মরিচ, গোলাপের পাপড়ি, জাফরান, এলাচ

ঠান্ডাই বানানোর পদ্ধতি

চিনির সঙ্গে ফুল ফ্যাট দুধ ফুটিয়ে নিন। কিছুটা দুধ ঠান্ডা হওয়ার জন্য সরিয়ে রাখুন।

অল্প কিছুটা গরম দুধে কাজু বাদাম, পোস্ত, পেস্তা, চার মগজ, মৌরি, কালো গোলমরিচ, এলাচ, শুকনো গোলাপের পাপড়ি ৪৫ মিনিট অন্তত ভিজিয়ে রাখুন।সমস্ত উপকরণ দুধে ভিজে ফুলে উঠলে একটা মসৃণ পেস্ট করে নিতে হবে। পেস্টটা একটা ছাঁকনিতে ছেঁকে নিন। তারপর থকথকে যে অংশটা পেলেন সেটা ঠাণ্ডা দুধে মিশিয়ে তার সঙ্গে কয়েক জাফরান দিয়ে মিক্সিতে ব্লেন্ড করে নিন। ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা হওয়ার পর ওপর থেকে আমন্ড কুঁচি, পেস্তা দিয়ে ঠান্ডা ঠান্ডা ঠান্ডাই পরিবেশন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − five =