হার্দিক-রোহিত দ্বন্দ্ব! পান্ডিয়ার টিম বন্ডিং সেশনে দেখা নেই হিটম্যানের

টিম বন্ডিং সেশন। যে কোনও টিমের ক্ষেত্রেই এটা করা হয়ে থাকে। ভারতীয় দল বিদেশ সফরে গেলে এমনটা হয়ে থাকে। ক্রিকেটের বাইরে নানা ভাবে একসঙ্গে সময় কাটান দলের সকলেই। দক্ষিণ আফ্রিকায় যেমন আফ্রিকান সাফারি তার অন্যতম উদাহরণ। নিজেদের মানসিক ভাবে তরতাজা রাখতেই এমনটা হয়ে থাকে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও ব্যতিক্রম নয়। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স এমনই এক উদ্যোগ নিয়েছিল।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স একটা কোর টিম ধরে রাখলেও কেউ বা ফিরেছেন, অনেকেই নতুন মুখ। যেমন জেসন বেহরেনডর্ফের পরিবর্ত লুক উড পুরোপুরি অচেনা। টিমের সকলের মধ্যে বোঝাপড়া বাড়াতে আলিবাগে একটা সংক্ষিপ্ত টুরের ব্যবস্থা করেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। ক্যাপ্টেন হার্দিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বে পুরো টিমই কার্যত হাজির ছিল। ক্রিকেটের বাইরে নানা ভাবে সময় কাটানো। সেই ট্র্যাভেল ডায়েরির ভিডিয়ো প্রকাশ করা হয়েছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে। সেখানেই প্রশ্ন।

মরসুমের শুরু থেকেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্স সমর্থকদের মধ্যে একটা অস্বস্তি চলছে। ট্রেডিংয়ে নেওয়া হয় হার্দিক পান্ডিয়াকে। এরপর তাঁকে অধিনায়ক ঘোষণা করা হয়। টিমকে পাঁচ বার আইপিএল ট্রফি দেওয়া রোহিতকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ায় প্রবল ক্ষুব্ধ মুম্বই সমর্থকরা। রোহিত শর্মা জাতীয় দলের অধিনায়ক। তিন ফরম্যাটেই দলকে সাফল্য দিচ্ছেন। রোহিতকে সরানো নিয়ে প্রশ্নে অস্বস্তিতে পড়েছিলেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স কোচ মার্ক বাউচারও। এ বার জল্পনা শুরু হয়েছে মুম্বইয়ের টিম বন্ডিং ভিডিয়ো নিয়ে।

হার্দিক-রোহিতের মধ্যে কি ঠান্ডা লড়াই চলছে? টিমের মধ্যে একতা বোঝানোর জন্য একটি ভিডিয়ো প্রকাশ করেছিল মুম্বই। ভিডিয়োর একেবারে শেষ দিকে সোফায় প্রাক্তন এবং বর্তমান অধিনায়ককে দেখা যায়। কিন্তু দু-জনের মাঝের শারীরীক গ্যাপটা যে মানসিকও সেটাই যেন মনে হচ্ছে। রোহিতকে কি যোগ্য সম্মান দেওয়া হচ্ছে না?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seven + 14 =