‘কোভিড নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই’, হাওড়াতে দাঁড়িয়ে আশ্বস্ত করলেন কলকাতা পৌর নিগমের মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

বৃহস্পতিবার বেলায় হাওড়ার পুড়ে যাওয়া ইছাপুর বস্তি পরিদর্শনে এসে সকলকে আশ্বস্ত করলেন পৌর ও নগরায়ন মন্ত্রী তথা কলকাতা পৌর নিগমের মহানাগরিক ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন,’ আমি চিকিৎসক বা বিজ্ঞানের ছাত্র নই, তবু দীর্ঘদিন মানুষের সঙ্গে কাজ করার  অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, আরেকটি টিকা যদি এক বছরে দিয়ে দেওয়া যেত, তাহলে অনেকটা ভালো হতো। কিন্তু কোভিডের নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে অযথা উদ্বেগ হওয়ার কোনো কারণ নেই।’ এছাড়াও মন্ত্রী আরও বলেন,’আমি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে এখানে এসেছি। যাদের বাড়ি পুড়ে গেছে, তাদেরকে নতুন বাড়ি তৈরি করে দেওয়া হবে ও ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট থেকে পনেরো হাজার টাকা তাদের ব্যাংক একাউন্টে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। স্থানীয় বিধায়ক মনোজ তিওয়ারি ব্যাংকের শাখাতে কথা বলে ক্ষতিগ্রস্থদের একাউন্ট নম্বরগুলো সংগ্রহ করে দেওয়ার পরেই টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হবে। দশ পনেরো দিনের মধ্যেই ক্ষতিগ্রস্থদের বাড়ি তৈরি করে দেওয়া হবে।’ পাশপাশি ইন্ডি জোটের প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে নাম প্রস্তাব করেছেন সেটা জোটের বৈঠকেই আলোচনা করে নির্ধারিত করা হবে ও বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে এই রাজ্যে জোটের ভবিষ্যৎ প্রসঙ্গে ফিরহাদ বলেন,’ কংগ্রেস আমাদের সহজাত সঙ্গী।’

এছাড়াও মুর্শিদাবাদের বিধায়ক বাইরন  বিশ্বাসের বাড়িতে আয়কর হানার প্রসঙ্গে মন্ত্রী কেন্দ্রীয় সরকারকে কটাক্ষ করে বলেন,’ এই ধরণের কাজ করে তৃণমূলকে কমানো যাবে না, এতে তৃণমূল আরও বাড়বে ও এই ধরণের হানাও বাড়বে।’ সবশেষে শুভেন্দুর নবান্নে যাওয়াকে কটাক্ষ করে ফিরহাদ বলেন,’ দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি তোলা হচ্ছে, তাই শুভেন্দুও নিজের ছবি তোলানোর জন্য নবান্নে গেছিল।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *