বুলডোজার নিয়ে শাহিনবাগে বেআইনি দখল বিরোধী উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার

দিল্লির জাহাঙ্গিরপুরীতে (Jahangirpuri) পুরনিগমের উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে উত্তেজনা দেখা দিয়েছিল। এবার উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠল শাহিনবাগ (Shaheen Bagh)। ২০১৯ সালের শেষ এবং ২০২০-র শুরুতে সিএএ বিরোধী আন্দোলনের কেন্দ্রস্থল হয়ে উঠেছিল যেখানকার রাস্তা। সেখানেই দক্ষিণ দিল্লি পুরনগিমে (South Delhi Municipal Corporation) বুলডোজার দিয়ে উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে নতুন করে উত্তেজনা দেখা দিল।

এদিন বুলডোজার নিয়ে পুরনিগমের কর্মীরা উচ্ছেদ অভিযানে এলে ওই বুলডোজারের সামনে দাঁড়িয়েই প্রতিবাদ করেন স্থানীয় মানুষ। ফলে থমকে যায় পুর অভিযান। বিক্ষোভে স্থানীয়দের সঙ্গে ছিলেন কংগ্রেস (Congress) ও আম আদমি পার্টির সমর্থকরাও। ছিলেন খোদ আপ বিধায়ক আমানতউল্লাহ খানও (Amanatullah Khan)। আপ বিধায়ক দাবি করেন, এই মুহূর্তে এলাকায় একটিও বেআইনি নির্মাণ নেই। তিনি বলেন, ‘এখানে কোনও অবৈধ নির্মাণ নেই। বুলডোজার এনে দেখানোর চেষ্টা হচ্ছে যে আমি পুরনিগমের উচ্ছেদ অভিযানে বাধা দিচ্ছি।’

অন্যদিকে অভিযোগ উঠছে, শাহিনবাগে উচ্ছেদ অভিযানের পিছনে রয়েছে দিল্লি বিজেপির প্রধান আদেশ গুপ্ত। আদেশ গত মাসে আধিকারিকদের চিঠি লিখে উচ্ছদে অভিযানের দাবি জানিয়েছিলেন। তিনি আরও বলেন, ‘এলাকায় বেআইনি দখল নিয়েছে রোহিঙ্গা, বাংলাদেশি ও দুষ্কৃতীরা।’ উল্লেখ্য, জাহাঙ্গিরপুরীতে অশান্তির পর উচ্ছেদ অভিযান নিয়ে বিস্তর জলঘোলা হয়। যদিও সুপ্রিমকোর্ট ওই উচ্ছেদ অভিযানে স্থগিতাদেশ দেয়। তারপরেও বেশ কিছুক্ষণ পুরনিগম অভিযান চালিয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছিল। যে ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয় শীর্ষ আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + seven =