কোমর্বিডিটি না থাকলেও ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিরা পাবেন প্রিকশন ডোজ, বড় ঘোষণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য (Mansukh Mandaviya) জানিয়েছে, চলতি মাসের ১৬ তারিখ অর্থাৎ বুধবার থেকে ১২ থেকে ১৪ বছর বয়সীদের করোনা টিকাকরণ (Covid Vaccination for Child) শুরু হবে। ছোটদের টিকাকরণ নিয়ে এই সুখবর ঘোষণা পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও এক গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ষাটোর্ধ্বদের (Senior Citizen) ক্ষেত্রে প্রিকশন ডোজের ক্ষেত্রে কো-মর্বিডিটি যে বাধ্যবাধকতা ছিল, তাও প্রত্যাহার করে নেওয়া হচ্ছে।

অন্যান্য দেশে এই প্রিকশন ডোজ বুস্টার ডোজ হিসেবে পরিচিত। প্রধানমন্ত্রী একটি বিশেষ ভাষণে কোভিডের প্রিকশনারি ডোজ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন। প্রথমে সব প্রথম সারির কোভিড যোদ্ধা এবং কোমর্বিডিটি সহ ষাটোর্ধ্বদের এই প্রিকশন ডোজ দেওয়ার ঘোষণা করা হয়। প্রিকশন ডোজ নেওয়ার জন্য ডাক্তারের কোনও শংসাপত্র লাগবে না বলেও জানানো হয়েছিল।

টুইটে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘ছোটর নিরাপদ থাকলে দেশও নিরাপদ থাকবে। আমি অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে সবাইকে জানাতে চাই ১২, ১৩ ও ১৪ বছর বয়সীদেরকে আগামী ১৬ মার্চ থেকে করোনা টিকা দেওয়া হবে। এছাড়াও ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিরা সহজেই প্রিকশন ডোজ পাবেন। আমি প্রত্যেক শিশু ও ৬০ বছর বয়সীদের অনুরোধ করছি, দ্রুত করোনা টিকা নেওয়ার জন্য।’

সূত্রের খবর, কেন্দ্রীয় সরকার ১২ থেকে ১৪ বছর বয়সীদের বাওলজিক্যাল-ই সংস্থার কর্বেভ্যাক্স টিকা দেওয়া হবে। দ্য ন্যাশানাল টেকনিক্যাল অ্যাডভিসরি গ্রুপ অব ইমিউনাইজেশ ছোটদের করোনা টিকা দেওয়ার সুপারিশ করেছে। সরকারি সূত্র জানিয়েছে, ‘বুধবার থেকে ১২ থেকে ১৪ বছর বয়সীদের করোনা টিকা দেওয়ার কাজ শুরু হবে। এছাড়াও ষাটোর্ধ্বদের প্রিকশন ডোজ দেওয়ার ক্ষেত্রেও কো-মর্বিডিটির যে নিয়ম রয়েছে, তাও বদল করা হয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − 3 =