শেষ ওভারের জন্য ধোনির পরামর্শেই আমি সফল: রিঙ্কু সিং

ভারতের মাটিতে হওয়া তেইশের ওডিআই বিশ্বকাপের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হেরেছে ভারত। বিশ্বকাপ শেষ হতে না হতেই শুরু হয়ে গিয়েছে ভারত অস্ট্রেলিয়ার টি-২০ সিরিজ। ৫ ম্যাচের এই টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ হয়েছে বৃহস্পতিবার। বিশাখাপত্তনমে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২ উইকেটে জিতেছে টিম ইন্ডিয়া। টস জিতে অজিদের বিরুদ্ধে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, রোহিত শর্মার অনুপস্থিতিতে টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেন সূর্যকুমার যাদব। জশ ইংলিশের শতরানের ইনিংস, স্টিভ স্মিথের অর্ধশতরানে ভর করে অজিরা তুলেছিল ৩ উইকেটে ২০৮ রান। ১ বল বাকি থাকতে সেই টার্গেট পূরণ করে ভারত। ২০৯ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই ঋতুরাজ গায়কোয়াড়ের উইকেট হারায় ভারত। তৃতীয় ওভারে যশস্বী জয়সওয়ালের উইকেট তুলে নেন ম্যাট শর্ট। ঈশান কিষাণ ৫৮ রান করেন। আর ৮০ রানের অধিনায়োকচিত ইনিংস খেলেন সূর্যকুমার যাদব। শেষ অবধি টানটান ম্যাচে জেতে ভারত। সিরিজে ১-০ এগিয়ে টিম ইন্ডিয়া।

ভারত-অস্ট্রেলিয়ার প্রথম টি-২০ ম্যাচের শেষে ৬ নম্বরে নামা তরুণ ক্রিকেটার রিঙ্কু সিংকে নিয়ে আলোচনা চলছে। তিনি ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ ফিনিশ করেছিলেন। অবশ্য সেই রান তাঁর খাতায় যোগ হয়নি। কারণ, নো বল ছিল। শেষে ভারতের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১ রান। তাই নো বল হতেই ম্যাচ জিতে যায় ভারত।

রিঙ্কু সিং ১৪ বলে ২২ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। ফিনিশার রিঙ্কু বিসিসিআই টিভিতে জানিয়েছেন, শেষ ওভারের চাপ সামলানোর জন্য তিনি পরামর্শ নিয়েছেন ক্যাপ্টেন কুলের। মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো ফিনিশার বিশ্ব ক্রিকেটে আর কতজনই বা আছে। ধোনির থেকে তাই ম্যাচ শেষ করার পরামর্শ নিয়েছেন তরুণ ক্রিকেটার রিঙ্কু সিং। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৫ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে এগিয়ে যাওয়ার পর সে কথা জানিয়েছেন রিঙ্কু। রিঙ্কুর কথায়, ‘মাহি ভাইয়ের সঙ্গে আমার একবার কথা হয়েছিল শেষ কয়েক ওভারে তিনি কী ভাবেন। আমাকে তিনি বলেছিলেন, শান্ত থাকবে এবং সোজা বল মারার চেষ্টা করবে।’ মাহির কথা অনুসরণ করেই সফল হয়েছেন রিঙ্কু। তিনি বলেছেন, ‘আমি মাহি ভাইয়ের পরামর্শ মেনেছি। এবং শান্ত থাকার চেষ্টা করেছি। কোনও প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করিনি। আর এটা আমাকে খুব সাহায্যও করেছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *