ক্যালেন্ডারের বার-তারিখ মুখস্থ প্রথম শ্রেণির দীপায়নের

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: ক্যালেন্ডার ধরে যে কোনও তারিখ বলে দিলেই সেই দিনের বার বলে দিতে পারে বাঁকুড়ার এই খুদে। গড়গড় করে বলে দিচ্ছে বার, তারিখ সব কিছু। ভুল হচ্ছে না একবারও।
বাঁকুড়ার দীপায়ন পাত্র সেন্ট মাইকেলস ßুñলের প্রথম শ্রেণির ছাত্র। এত ছোট বয়সেই কী ভাবে তৈরি হল ক্ষুরধার স্মৃতিশক্তি? দীপায়নের মা তপতী পাত্র জানান যে, ঠিক কী ভাবে এই কাজ করতে পারছে দীপায়ন সেটা তিনি নিজেও জানেন না। তবে ক্যালেন্ডারের প্রতি একটা আলাদা টান রয়েছে দীপায়নের। ক্যালেন্ডার দেখে দেখে নিজেই প্রায় রপ্ত করে ফেলেছে ২০২১- ২০২৩ সাল পর্যন্ত। ধরে ধরে বলে দিতে পারে দিন এবং বার।
বাঁকুড়ার খুদে এই চঞ্চল ছেলে পড়াশোনাতেও তুখড়। ক্যালেন্ডারের তারিখ ধরে ধরে দিন বা বার বলা ছাড়াও, অমাবস্যা কিংবা পূর্ণিমা। যে কোনো পুজো, পুজোর বার এবং তারিখ বলে দিতে পারে এই ছেলেটি। নিজের মতো সময় করে ক্যালেন্ডার দেখার ঝোঁকই তাকে এই অভাবনীয় স্মৃতিশক্তি বানাতে সাহায্য করেছে।
স্বাভাবিকভাবেই বাঁকুড়ার খুদের পরিবারের লোকজন অত্যন্ত খুশি এই আকস্মিক সাফল্যে। দীপায়নকে ঘিরে তাঁরা এখন নানা ধরনের স্বপ্ন বুনতে শুরু করেছেন। ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডস অথবা যে কোনও রেকর্ড বুকে নাম তোলার চলছে কথা। এখনও পর্যন্ত তিনটে সাল রপ্ত করেছে দীপায়ন। ধীরে ধীরে আরও বাড়বে তার পরিসর, এমনটাই দাবি পরিবারের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *