বিজেপি নেতার ঘর ওয়াপসি, যুব তৃণমূল নেতার হাতেও পদ্ম পতাকা

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন গেরুয়া শিবিরের তালডাংরা ব্লকের প্রাক্তন ব্লক তথা মণ্ডল সভাপতি আখিল চন্দ্র রক্ষিত। এরপর পদ না মিললেও তৃণমূলের কর্মী হিসাবে গত ৩ বছর লাগাতার কাজ করে গিয়েছেন তিনি। সেই আখিল চন্দ্র রক্ষিত ফের ফিরলেন বিজেপিতে। ঘাসফুল শিবির ছেড়ে পদ্ম পতাকা ধরলেন যুব তৃণমূলের ব্লক সহ-সভাপতিও। মঙ্গলবার রাতে তালডাংরায় দলের বাঁকুড়া সাংগঠনিক জেলা সভাপতি সুনীল রুদ্র মণ্ডলের হাত ধরে অনুগামীদের সঙ্গে নিয়ে পদ্ম পতাকা হাতে তুলে নেন তাঁরা। এই ঘটনাকে ঘিরে তালডাংরায় শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর।
বাঁকুড়ায় ঘাসফুল শিবিরে ভাঙন অব্যাহত। ২০২১ এর আগে গেরুয়া শিবির ছেড়ে ঘাসফুল শিবিরে যোগ দেওয়া ডাকাবুকো নেতা আখিল চন্দ্র রক্ষিত লোকসভা নির্বাচনের আগে শুধু নিজের ঘরে ফিরলেন তাই নয়, ঘাসফুল শিবির ছেড়ে অনুগামীদের সঙ্গে নিয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিলেন যুব তৃণমূলের তালডাংরা ব্লকের সহ-সভাপতি সাগর লায়েকও। বিজেপিতে যোগ দেওয়া দুই নেতারই দাবি, দেশজুড়ে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে উন্নয়নের কর্মযজ্ঞে সামিল হতেই তাঁদের এই শিবির বদল।
বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, রাজ্য যে ভাবে দুর্নীতি ও বেকারত্বে ডুবে যাচ্ছে, তাতে আপামর মানুষ বিরক্ত। তাই তৃণমূল ছেড়ে দলে দলে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। তৃণমূল নেতা কর্মীদের এই দল বদলে রীতিমতো অস্বস্তিতে ঘাসফুল শিবির। তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, যা¥রা বিজেপিতে যোগদান করেছেন তাঁরা পঞ্চায়েত নির্বাচনে দলের হয়ে কাজ করেননি। উলটে দলকে বিপাকে ফেলার চেষ্টা করেছেন। এই ধরনের আবর্জনা দল থেকে যত বেরিয়ে যায় ততই দলের মঙ্গল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *