বিজয় হাজারে ট্রফিতে তামিলনাডুর কাছে বাংলার হার, ত্রিপুরা হারাল সৌরাষ্ট্রকে

বিজয় হাজারে ট্রফিতে দুর্দান্ত শুরু করেছিল বাংলা। প্রথম ম্যাচে নাগাল্যান্ডের বিরুদ্ধে বড় জয়। গত ম্যাচে তারা হারায় বরোদাকে। অভিমন্যু ঈশ্বরণের সেঞ্চুরিতে বিশাল স্কোর গড়েছিল বাংলা। এক দিনের ব্য়বধানেই চরম ব্য়াটিং বিপর্যয়। দীনেশ কার্তিকের নেতৃত্বাধীন তামিলনাডুর কাছে মুখ থুবড়ে পড়ল বাংলা। বোলাররা মরিয়া চেষ্টা করলেও কোনও ভাবেই তা সম্ভব ছিল না। ৮৪ রানের পুঁজি নিয়ে কি আর লড়াই করা যায়?

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন তামিলনাডু অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। ইনিংসের তৃতীয় বলেই গত ম্য়াচের নায়ক অভিমন্যু ঈশ্বরণকে বোল্ড করেন বাঁ হাতি পেসার নটরাজন। অবাক করা সিদ্ধান্ত বাংলা টিম ম্য়ানেজমেন্টের। তিন নম্বরে নামানো হয় পেসার আকাশ দীপকে। ৯ বল ক্রিজে থাকলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি। চারে নামেন অধিনায়ক সুদীপ ঘরামি। ৪ রানেই ফেরেন সুদীপ। কিপার ব্যাটার অভিষেক পোড়েল ১৪, অনুষ্টুপ মজুমদার ১১, শাকির হাবিব গান্ধী ১৯ এবং শাহবাজ আহমেদ ২০ রান করেন। বাংলা ইনিংসে এগুলিই উল্লেখযোগ্য রান। ২৩.৪ ওভারে ৮৪ রানেই অলআউট বাংলা। তামিলনাডুর বাঁ হাতি পেসার নটরাজন ২টি এবং সন্দীপ ওয়ারিয়ের ৪ উইকেট নিয়ে বাংলা ইনিংসে বিপর্যয় আনেন।

মাত্র ৮৪ রানের পুঁজি নিয়েও আশা জাগিয়েছিলেন বাংলার বোলাররা। বিশেষ করে বলতে হয় মহম্মদ সামির ভাই মহম্মদ কাইফের কথা। ৪.১ ওভারে ১টি মেডেন, মাত্র ১২ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন। রান তাড়ায় ৬৫ রানে ৫ উইকেট হারায় তামিলনাডু। তবে অভিজ্ঞ বাবা ইন্দ্রজিৎ (১৭) ও শাহরুখ খান (৯) কোনও অঘটন হতে দেননি। ১৯.১ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছয় তামিলনাডু। বাংলার পরবর্তী ম্য়াচ বুধবার মধ্যপ্রদেশের বিরুদ্ধে।

বিজয় হাজারে ট্রফিতে এ দিন অঘটন ত্রিপুরার। গত বারের চ্য়াম্পিয়ন সৌরাষ্ট্রকে হারিয়ে দিল তারা। বাংলার প্রাক্তন ব্যাটার সুদীপ চট্টোপাধ্যায়ের অনবদ্য ইনিংস, প্রথমে ব্য়াট করে সৌরাষ্ট্রকে ২৫৯ রানের লক্ষ্য দেয় ত্রিপুরা। পাঁচ উইকেট নেন সৌরাষ্ট্রর বাঁ হাতি পেসার জয়দেব উনাদকাট। রান তাড়ায় খেই হারায় সৌরাষ্ট্রর শক্তিশালী ব্য়াটিং আক্রমণ। হতাশ করেন টেস্ট দল থেকে বাদ পড়া চেতেশ্বর পূজারাও। ৩১.৪ ওভারে মাত্র ১১০ রানেই অলআউট গত বারের চ্যাম্পিয়ন। ঋদ্ধিমান সাহার নেতৃত্বাধীন ত্রিপুরার হয়ে জয়দেব দেব ৫ উইকেট নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *