উচ্ছেদ নয়, মানুষের হাঁটার অধিকার ফিরিয়ে দিতে উদ্যোগ বারাসাত পুরসভার

সুমন তালুকদার

হকার উচ্ছেদ-না করেই রাস্তায় মানুষের হাঁটার অধিকার ফিরিয়ে দিতে উদ্যোগী হল বারাসাত পুরসভার নতুন পুরবোর্ড। বারাসাত ১২ নম্বর রেলগেটর ওপর উড়ালপুল, তার নীচের রাস্তা বারাসাত কেবি বসু রোড় জেলা সদরের ব্যবসার হার্ট লাইন। রাস্তাটি দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে মানুষের চলাচলের অযোগ্য হয়ে উঠেছিল। কিছু প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী ছাড়াও বৈধ হকারের তাদের পসরা বাড়াতে বাড়াতে রাস্তা দখল করে ফেলায় এই সমস্যা তৈরি হয়েছে। শুধু এই রাস্তাটিই নয়, বারাসাত শহরের একাধিক রাস্তাতেই এই একই সমস্যা রয়েছে। বারাসাত পুরসভার নতুন পুরপ্রধান অশনি মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পুরবোর্ড সিদ্ধান্ত নিয়েছে বারাসাত শহরের সৌন্দর্যায়নের পাশাপাশি রাস্তা দখলমুক্ত করে চুরি যাওয়া রাস্তা মানুষকে ফেরত দেওয়া।

নতুন পুরবোর্ড গঠনের পরেই বিষয়টি নিয়ে একটি বৈঠকে পুরপ্রধান অশনি মুখোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছিলেন ব্যবসায়ীদের রাস্তা দখল মুক্ত করার। দীর্ঘদিন মাইকে প্রচারও চালানো হয়। সেই লক্ষ্যেই মঙ্গলবার  বারাসাত পুরসভার উপপুরপ্রধান তাপস দাশগুপ্তের নেতৃত্বে অন্যান্য পুরপিতারা পরিদর্শনে বের হন। তারা সমস্যা সরজমিনে পরীক্ষার পাশাপাশি ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করেন, তাদের পসরা সরিয়ে দ্রুত রাস্তা যাতায়াতের উপযোগী করার।

উপপুরপ্রধান তাপস দাশগুপ্ত বলেন, আমাদের উদ্দেশ্যে  হকার্স উচ্ছেদ করা নয়। কারো উপার্জন বন্ধ করা নয়। তারা যেন রাস্তা পরিষ্কার রেখে দোকানের মধ্যেই ব্যবসা করে। সেই কারণেই এদিনের পরিদর্শন এবং এই রিপোর্ট পুরবোর্ডে জমা দেওয়ার পর আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। অন্যদিকে পুরপ্রধান অশনি মুখোপাধ্যায় বলেন, পথচলতি মানুষ নিশ্চিন্তে, নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারবে এটাই পুরবোর্ডের সিদ্ধান্ত। মানুষের পথচলার অধিকারকে মান্যতা দেওয়াই পুরসভার কাজ, তার জন্যই তারা ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে আমাদের ভোট দিয়েছে। যাতে ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ উভয়েরই স্বার্থ বিঘ্নিত না হয় সেই কাজই আমরা করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + 20 =