ইউক্রেনে রুশ সেনাবাহিনীর অগ্রাসনে হতাশ টেনিস তারকা আজারেঙ্কা

রাশিয়া ঘনিষ্ঠ দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম বেলারুশ। এ কারণেই ক্রীড়া বিশ্বে রাশিয়ার মতো বেলারুশকেও নিষিদ্ধ করছে বিভিন্ন ফেডারেশন বা অ্যাসোসিয়েশন। আধুনিক এই যুগে এসে কোনো একটি স্বাধীন দেশের ওপর আগ্রাসন মেনে নিতে চাইছেন না কেউ। যাঁদের কিছু বলার বা করার নেই, তাঁরা হয় প্রতিবাদ জানাচ্ছেন অথবা রাশিয়ার আগ্রাসনের শিকার ইউক্রেনিয়ানদের জন্য নিরবে চোখের জল ফেলছেন।

পুরো বিশ্ব যখন ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর হামলার প্রতিবাদে মুখর, এমন সময় খোদ রাশিয়ার মিত্রদেশ বেলারুশের টেনিস তারকা ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কাও মুখ খুললেন ইউক্রেনের পক্ষে। প্রতিবেশী দেশ ইউক্রেনের প্রতি রুশ আগ্রাসন ক্ষতবিক্ষত করছে তাঁর হৃদয়। ইউক্রেনের মানুষের এমন দুর্দশা সইতে পারছেন না ২০১২ সালে বেলারুশকে অলিম্পিক টেনিসে সোনার পদক এনে দেওয়া ৩২ বছর বয়সী আজারেঙ্কা।

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের প্রতিবাদ তিনি করেছেন টুইটারের মাধ্যমে, ‘গত কয়েক দিনে ইউক্রেনে যা করা হয়েছে, তা দেখে আমি বিধ্বস্ত। এ ধরনের সহিংসতায় নিরাপরাধ সাধারণ মানুষ যেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, তা হৃদয়বিদারক।’ এমনিতে ইউক্রেন ও বেলারুশের মানুষদের মধ্যে সম্পর্ক খুব ভালো। পুরোনো দিনের কথা মনে করে আজারেঙ্কা বলেন, ‘আমি সব সময়ই দেখেছি যে ইউক্রেন ও বেলারুশের মানুষদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। সহিংসতা সেই সম্পর্কে ফাটল ধরাচ্ছে, এটা মেনে নেওয়া কঠিন।’

গত মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশন ঘোষণা দিয়েছে, রাশিয়া ও বেলারুশকে ডেভিস কাপ ও বিলি জিন কিং কাপে নিষিদ্ধ করা হতে পারে। তবে দুই দেশের টেনিস খেলোয়াড়েরা দেশের পরিচয় বাদ দিয়ে একক প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 + fourteen =