করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে মৃত ৩ চিনা নাগরিক-সহ নিহত কমপক্ষে ৪

পাকিস্তানের করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে (Karachi University) গাড়ি বিস্ফোরণে নিহত হলেন চার জন। আহতের সংখ্যা একাধিক। এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে জিও নিউজ জানাচ্ছে, মৃতদের মধ্যে তিন চিনা নাগরিক রয়েছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে একটি গাড়িতে বিস্ফোরণ হয়। স্থানীয় সময় দুপুর আড়াইটে নাগাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফুসিয়াস ইনস্টিটিউটের সামনে সেই বিস্ফোরণ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বিস্ফোরণের খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ এবং উদ্ধারকারী দল। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যেই করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার দায় নিয়েছে বালুচিস্তান লিবারেশন আর্মি (BLA)। এই বিদ্রোহীগোষ্ঠীর মানববোমা হামলাতেই মঙ্গলবার তিন চিনা নাগরিক-সহ চার জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অনেকে। স্থানীয় সময় দুপুর আড়াইটে নাগাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফুসিয়াস ইনস্টিটিউটের সামনে গাড়িতে আত্মঘাতী হামলা চালায় বিএলএ-র এক মহিলা সদস্য।
পুলিশ সূত্রে খবর, যে মহিলা আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছেন তার নাম শারি বালুচ ওরফে ব্রামশ। বিএলএ বিদ্রোহীগোষ্ঠীর প্রথম মহিলা মানববোমা। হামলার পর বিএলএ-র তরফে একটি বিবৃতি জারি করা হয়েছে। সেখানে তারা হামলার দায় স্বীকার করেছে। সেই সঙ্গে এই হামলাকে বালুচ প্রতিরোধের ইতিহাসের এক নতুন অধ্যায় বলে উল্লেখ করেছে তারা।

পাকিস্তানের মাটিতে চিনা নাগরিকদের উপর এই প্রথম বড়সড় হামলা চালাল বিএলএ। যদিও ২০২১-এর জুলাইয়ে উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানের দাসুতে চিনা নাগরিকদের একটি বাসে হামলার ঘটনা ঘটে। সেই হামলায় ন’জন চিনা নাগরিকের মৃত্যু হয়। সেই ঘটনায় পাকিস্তানের তালিবান জঙ্গিরা হামলার দায় স্বীকার করেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + eleven =