প্রাক্তন প্রেমিককে নিয়ে স্বামীর সঙ্গে বাকবিতণ্ডা, আত্মঘাতী নববধূ

মধুচন্দ্রিমায় এসে প্রাক্তন প্রেমিককে নিয়ে স্বামীর সঙ্গে বাকবিতণ্ডা ও অশান্তির মাঝে দিঘার হোটেল থেকে ঝাঁপ দিলেন নববধূ। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তিনি কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তরুণীর স্বামীকে গণধোলাই দেয় স্থানীয় বাসিন্দারা। এই ঘটনার নেপথ্যে অন্য কোনও রহস্য রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদের রাধা কুমারী এবং বিনোদ মিশ্রার বিয়ে হয় মাসখানেক আগে। দিঘায় মধুচন্দ্রিমায় যান নবদম্পতি। তাঁরা নিউ দিঘার একটি হোটেলে ওঠেন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বাঁধে। বিয়ের আগে অপর এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল নববধূর। তা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়াঝাটি শুরু হয়।

অশান্তির মাঝে রাধা রাগের চোটে তিনতলার বারান্দা থেকে ঝাঁপ দেওয়ার চেষ্টা করেন। প্রথমে তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন তাঁর স্বামী। তবে শেষমেশ হাত ফসকে রাধা তিনতলা থেকে নিচে পড়ে যান।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় দিঘা থানা পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে। দিঘা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে কাঁথি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। উত্তেজিত জনতা ওই যুবককে গণধোলাই দেয়।

দিঘা থানার পুলিশ নববধূর স্বামীকে আটক করেছে। রাধা কুমারী প্রাক্তন প্রেমিককে নিয়ে অশান্তি নাকি এই ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে অন্য কোনও রহস্য, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − one =