ফের বন দপ্তরের জায়গা দখলের চেষ্টার অভিযোগ বেসরকারি স্কুলের বিরুদ্ধে, বাজেয়াপ্ত আর্থমোভার

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: গত ২০২৩ সালে ২০ ডিসেম্বর বিষ্ণুপুরের চৌকান সংলগ্ন এলাকায় বন দপ্তরের জায়গায় স্থানীয় বিট অফিসারের মদতে জঙ্গলে বহু মূল্যবান গাছ কেটে অবৈধ ভাবে রাস্তা নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছিল একটি বেসরকারি স্কুলের বিরুদ্ধে। বন দপ্তরের অফিসারকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো থেকে শুরু করে উঠেছিল চোর চোর স্লোগান। বিভিন্ন খবর সম্প্রচারের পর ওই বিট অফিসারকে শোকজ করেছিল বিষ্ণুপুর পাঞ্চেত বন বিভাগ। বন দপ্তরের পক্ষ থেকেও স্কুলকে নোটিশ দেওয়ার কথা বলেছিল বিষ্ণুপুর পাঞ্চেত বন বিভাগের ডিএফও। অভিযোগ ছিল, ওই বেসরকারি স্কুলের খেলার মাঠে যাওয়ার জন্য রাস্তার প্রয়োজন বন দপ্তরের জায়গার ওপর দিয়ে, যে কারণেই তারা বহু মূল্যের গাছ কেটেছিল।
এই ঘটনার দু’ মাস পেরিয়ে যাওয়ার পর আজ, সোমবার আবার ওই স্কুল কর্তৃপক্ষ ওই একই জায়গায় কাটা গাছের গোড়া আর্থমোভার দিয়ে উপরে ফেলছিল বলে অভিযোগ। ঘটনা নজরে আসে স্থানীয় বাসিন্দাদের। পুনরায় তারা প্রতিবাদ করতে শুরু করেন। তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছন বন দপ্তরের আধিকারিকরা। এই ঘটনায় শোকজ হওয়া বিট অফিসার সেখানে গিয়ে আর্থমোভার সিজ করেন। তবে যে স্থানীয়বাসীরা ওই অফিসারের বিরুদ্ধে খুব উগরে দিয়েছিলেন, তাঁরা এবার বন দপ্তরের এই কর্মকাণ্ডে ব্যাপক খুশি। সমগ্র ঘটনায় ßুñল কর্তৃপক্ষ মুখ খুলতে রাজি হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *