সকাল সকাল বার্নপুর বাজার থেকে রবিবাসরীয় প্রচার শুরু অগ্নিমিত্রার

আসানসোল : রবিবারে সকাল-সকাল আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভা অন্তর্গত বার্নপুর বাজারে ঢুকে পড়লেন বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল। একেবারে মাছ বাজার থেকে সবজি বাজার হয়ে কাপড়ের বাজার পর্যন্ত তিনি প্রচার করেন। জনসংযোগ স্থাপন করেন পথচলতি বাজারে মানুষদেরসহ দোকানদারদের সঙ্গে। সামনে পয়লা বৈশাখ, তাই মায়ের জন্য ছাপা সুতির শাড়ি দোকানে পছন্দ করে রাখেন। এদিন প্রচারে বেরিয়ে তিনি শত্রুঘন সিনহাকে একহাত নেন। আবার বহিরাগত বলে কটাক্ষ করেন তৃণমূল প্রার্থীকে।

গতকালই শত্রুঘ্ন সিনহা দাবি করেছেন তিনি অনুব্রত মণ্ডলকে চেনেন না। সেই প্রসঙ্গ টেনে অগ্নিমিত্রা বলেন, তৃণমূল তারকা প্রার্থী এই বাংলাকে চেনেন না। তিনি আসানসোলকে কি করে চিনবেন ? মুখ্যমন্ত্রীর স্লোগানের অনুকরণে তিনি আবারও দাবি করেন আসানসোল ‘আসানসোলের মেয়েকে চায়’। দিন দুয়েক আগে আসানসোল রবীন্দ্রভবনে তৃণমূলের এক কর্মীসভায় ভাষণে শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় অগ্নিমিত্রা পল প্রসঙ্গ টেনে বলেন ‘উনি বড় বড় টিপ পরে শুধু ঝগড়া করতে পারেন’।

এই প্রসঙ্গ টেনে অগ্নিমিত্রা বলেন, পয়লা বৈশাখের দিন সুতির শাড়ি ও আরো বড় টিপ পড়বো, কারণ কপালের টিপ বাঙালি মহিলাদের গর্ব। প্রসঙ্গত, অনুব্রত মণ্ডল নির্বাচনী প্রচারে লালবাতি লাগিয়ে ঘুরছেন। এই নিয়ে শনিবার অভিযোগ করেন বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল। কয়েকদিন ধরেই অনুব্রত মণ্ডল আসানসোলে শত্রুঘ্ন সিনহার প্রচারে দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিচ্ছেন। সেখানেই দেখা যায় বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের গাড়িতে লালবাতি রয়েছে। প্রার্থীর অভিযোগ লালবাতির প্রভাব দেখিয়ে প্রভাবিত করা চেষ্টা হচ্ছে।

মহম্মদ সেলিমের অভিযোগ, প্রশাসনকে নির্লজ্জভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে নির্বাচনী কাজে। তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, নির্বাচন আচারণবিধি শুধু আসানসোলে। উনি বীরভূম থেকে এসেছন। রাজ্যজুড়ে ঘুরছেন। লালবাতি গাড়িতে থাকলেও জ্বালানো হয়নি বাতি আসানসোলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × three =