হোডিং লাগানোর অনুমতির বিষয়ে পৌরনিগমের বৈষম্যমূলক আচরণ, অভিযোগ অগ্নিমিত্রার

আসানসোল : শুক্রবার সকালে আসানসোল জিটি রোড সংলগ্ন প্রধান ডাকঘরে পাশের মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করেন অগ্নিমিত্রা পল। জি টি রোড ধরে প্রচার করতে করতে তিনি যখন নিউ সিনেমা মোড়ে পৌঁছান, সেখানে প্রচার বন্ধ করে দলীয় সমর্থকদের নিয়ে সোজা চলে যান আসানসোল পৌরনিগমের মেয়রের চেম্বারের। চেম্বারে ঢুকে মেয়রের সাথে সৌজন্য বিনিময় করে মেয়রের হাতে বিজেপির নির্বাচনী ইশতেহার ধরিয়ে দেন বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল। এরপরই স্বমহিমা ধারণ করেন অগ্নিমিত্রা পল। তিনি মেয়র বিধান উপাধ্যায়-কে অভিযোগ করেন, পৌর নিগম হোর্ডিং লাগানোর ক্ষেত্রে বৈষম্যমূলক আচরণ করছে।

তিনি অভিযোগ করেন, বিজেপিকে মাত্র বারোটি হোর্ডিং লাগানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে অথচ, তার থেকে কয়েক গুণ বেশি হোর্ডিং লাগিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। মেয়রকে পুরো বিষয়টি দেখার জন্য অনুরোধ করেন অগ্নিমিত্রা পল। অনুরোধের সাথে সাথে তার অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে না দেখলে কর্পোরেশনের সামনে আমরণ অনশনের হুমকিও দেন অগ্নিমিত্রা পল। মেয়র বিধান উপাধ্যায় বিষয়টি খতিয়ে দেখার ব্যাপারে আশ্বস্ত করার পর অগ্নিমিত্রা মেয়রের চেম্বার থেকে বেরিয়ে যান। কিন্তু কয়েক মিনিটের মধ্যে অগ্নিমিত্রা কর্পোরেশনের প্রধান গেটের সামনে সমর্থকদের নিয়ে ধর্নায় বসে পড়েন। অগ্নিমিত্রার অভিযোগ, মেয়রের কাছে প্রতিশ্রুতি পেয়ে তার চেম্বার থেকে বেরিয়ে পৌরনিগমের কমিশনারকে ফোন করলে সেই ফোন কমিশনার ধরেননি, তাই তিনি বাধ্য হয়েছেন ধর্নায় বসতে। ঘন্টাখানেক অবস্থান বিক্ষোভ চলার পর পরিস্থিতি সামাল দিতে মেয়র বিধান উপাধ্যায় ও চেয়ারম্যান অমরনাথ চট্টোপাধ্যায় নিজেদের চেম্বার থেকে বেরিয়ে এসে কর্পোরেশন গেটের সামনে চলে আসেন। ততক্ষণে ধর্নার সমর্থনে আসানসোল পৌরনিগমে পৌঁছে যান রাজ্য বিজেপি নেতা কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায়।

মেয়র ও চেয়ারম্যানের সাথে বেশ কিছুক্ষণ বাক-বিতণ্ডার পর মেয়রের কাছ থেকে কমিশনারের সঙ্গে বিজেপি কর্তাদের বৈঠক করিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি পাওয়ার পর অবস্থান-বিক্ষোভ তুলে নেওয়া হয়। বিক্ষোভ শেষে অগ্নিমিত্রা পল বলেন, ‘প্রতিশ্রুতি পেয়ে আপাতত ধর্না তুলে নিলাম কিন্তু, প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ হলে পৌরনিগমের নয় মেয়রের বাসভবনে গিয়ে অনশনে বসবো’। মেয়র বিধান উপাধ্যায় বলেন, ‘পুরো ব্যাপারটি এজেন্সির হাতে। তবুও যখন তার চেম্বারে অগ্নিমিত্রা পল আবেদন নিয়ে এসেছিলেন আমি বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার ব্যাপারে আশ্বস্ত করেছিলাম। কিন্তু কি কারণে আবার অবস্থান-বিক্ষোভ করতে শুরু করলেন অগ্নিমিত্রা পল তা ঠিক বুঝতে পারলাম না’। শুক্রবার একাধিক দাবি ও অভিযোগ নিয়ে আসানসোল পৌরনিগমের মেয়রের কাছে যান আসানসোল লোকসভা উপনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল। মিনিট দশেক দু’জনের মধ্যে কথোপকথন হয়।

তারই মধ্যে বিধান উপাধ্যায়ের কাছে অগ্নিমিত্রা আবেদন করেন, গত বিধানসভা নির্বাচনে বারাবনিতে প্রচার চলাকালীন তৃণমূলীদের দ্বারা প্রার্থীর ওপর হামলার ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না হয়। আসানসোল পৌরনিগমের মেয়র তথা বারাবনির বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়-কে অগ্নিমিত্রা বলেন, গত বিধানসভা নির্বাচনে বারাবনিতে প্রচার চলাকালীন বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়-কে হেনস্থা করা হয় এবং তার গাড়িও ভাঙচুর করা হয়। যদিও সেই প্রার্থী তথা প্রাক্তন সাংসদ এখন তৃণমূলে এবং বর্তমানে বালিগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী। বিধান উপাধ্যায় অগ্নিমিত্রা-কে বলেন, একহাতে কোনদিন তালি বাজে না, আর বিরোধী নেতা-নেত্রীরা যদি জনগণের উদ্দেশ্যে মারের বদলা মার এই নিদান না দেন তাহলে কোনরূপ কোন অশান্তি হওয়ার প্রশ্নই নেই। বিধান উপাধ্যায় অগ্নিমিত্রাকে বলেন নিশ্চিন্তে প্রচার করুন। অতীতে কেউ কোনরূপ অশান্তি করেনি আর ভবিষ্যতেও করবেও না। শুধু লক্ষ্য রাখবেন আপনার দলের কোনো নেতা, কর্মী বা সমর্থক যেন উস্কানি মূলক প্ররোচনা না দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + 3 =