চেতলায় রঙের গুদামে ভয়াবহ আগুন, আতঙ্ক

কলকাতা: ট্যাংরার চামড়ার গুদামে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের স্মৃতি এখনও টাটকা। সেই স্মৃতি উস্কে ফের বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড শহর কলকাতায়। মঙ্গলবার সাতসকালে নিউ আলিপুর এলাকার চেতলা রোডের একটি রঙের গুদামে বিধ্বংসী আগুন লাগে। নিমেষের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলে দমকলের ৪ টি ইঞ্জিনের সাহায্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে আপ্রাণ চেষ্টা চালান দমকল কর্মীরা।পরে আসে আরও তিনটি ইঞ্জিন। তবে রাসায়নিক পদার্থ মজুত থাকায় দাউদাউ আগুন নেভার বদলে ছড়িয়ে পড়ে। এলাকাটি ঘিঞ্জি হওয়ায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে হিমশিম খেতে হয় কর্মীদের। যদিও প্রাণহানির এখনও কোনও খবর নেই।

২ বি, চেতলা রোড। এখানেই একটি রঙের গুদাম। পাশেই একটি ঝুপড়ি। এদিন সকালে রঙের গুদামে দাউদাউ করে জ্বলে ওঠার পরপরই তা ছড়িয়ে পড়ে ঝুপড়িতে। নিমেষের মধ্যে এলাকার আকাশ ঢেকে যায় কালো ধোঁয়ায়।  দমকলের সাতটি ইঞ্জিন।স্থানীয় বাসিন্দাদের যদিও অভিযোগ, দমকলকে খবর পাঠানোর বেশ খানিকক্ষণ পর ইঞ্জিন পাঠানো হয়। তাই আগুন লাগার পরপর তাঁরাই নেভানোর কাজে হাত লাগান। সংকীর্ণ এলাকা হওয়ায় ইঞ্জিন থেকে হোস পাইপ দিয়ে জল ছিটিয়ে আগুন নেভানোর কাজ চলে বলে জানা গিয়েছে দমকল সূত্রে।

গত সপ্তাহেই ট্যাংরা এলাকায়  চামড়ার গুদামে বিধ্বংসী আগুন লেগে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। রাতভর আগুন নেভাতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন দু’জন দমকলকর্মী।  প্রায় ১৬-১৭ ঘণ্টার চেষ্টায় সেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের আগুন।একের পর এক অগ্নিকাণ্ডে প্রশ্ন উঠছে এই গুদাম ও কারখানাগুলো তবে কি জতুগৃহ হয়ে উঠছে?

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + three =