৬ মাস আগেই কোপা আমেরিকা থেকে ছিটকে গেলেন নেইমার!

কোপা আমেরিকা থেকেই উত্থান শুরু হয়েছিল লিওনেল মেসির। কোপা জিতেই বিশ্বকাপের আঙিনায় পা রেখেছিলেন এলএম টেন। শেষ পর্যন্ত কাতার বিশ্বকাপ জিতে স্বপ্নপূরণ হয়েছে মেসির। এমন স্ক্রিপ্ট কি অন্য কোনও লাতিন আমেরিকান তারকারও হতে পারে? অন্য যে কারও হোক না কেন, নেইমারের হবে না। আগামী বছর জুন মাসের ২০ তারিখ কোপা আমেরিকা শুরু হবে। আবার আমেরিকায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে কোপা। তাতে নেইমারকে খেলতে দেখা যাবে না। ছ’মাস আগেই কোপা থেকে ছিটকে গেলেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার।

উরুগুয়ের বিরুদ্ধে প্রাক বিশ্বকাপের ম্যাচে হাঁটুতে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন নেইমার। কাঁদতে কাঁদতে তাঁর মাঠ ছাড়ার ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছিল। তারপর অস্ত্রোপচার করাতে হয়েছিল ব্রালিয়ান তারকাকে। মনে করা হয়েছিল, কোপা আমেরিকার আগে তিনি ফিট হয়ে উঠবেন। ব্রাজিলের জার্সিতে খেলতে দেখা যাবে তাঁকে। তা হল না। ব্রাজিল টিমের ডাক্তারই জানিয়েছেন, যাই হোক না কেন, কোপায় নেইমারকে দেখা যাবে না। ডাঃ রড্রিগো লাসমার বলেছেন, ‘যদিও খুব তাড়াতাড়ি এ নিয়ে মন্তব্য করা হয়ে যাবে। তবে সব কিছুর আগে একটা জিনিস নিশ্চিত করতে চাই, দ্রুত সুস্থ হতে গিয়ে পুরো প্রক্রিয়াকে এড়িয়ে যাওয়া যাবে না। তাতে কিন্তু ঝুঁকি আরও বেড়ে যাবে। আমাদের প্রত্যাশা, ২০২৪ সালে ইউরোপিয়ান মরসুম শুরুর আগে নেইমার ফিট হয়ে উঠবে। যার অর্থ হল, নেইমারের ফিট হতে অগাস্ট হয়ে যাবে।’

উরুগুয়ের বিরুদ্ধে নেইমারের চোটের সময় তো বটেই, অস্ত্রোপচারের পরও ডাঃ লাসমারকে উদ্বিগ্নই শুনিয়েছিল। তখন তিনি বলেছিলেন, কিছু দিন না গেলে ও কতটা ফিট, বলা মুশকিল। ঘটলও তাই। চিকিৎসকের কথা অনুযায়ী, ‘ধৈর্য ধরতে হবে। ৯ মাসের আগে নেইমারের মাঠে ফিরে আসা কিন্তু সময়ের আগে হয়ে যাবে। হাঁটুর লিগামেন্টে অস্ত্রোপচারের ক্ষেত্রে এই নিয়মই মেনে চলা হয়। এবং এই সময়টা দিতেই হয়, হবেও। এই সময়টাতে লিগামেন্ট আবার নতুন করে তৈরি করে নেয় শরীর। এই পুরো প্রক্রিয়াটা যদি ফলো করা যায়, তা হলে কিন্তু সর্বোচ্চ পর্যায়ে আবার পারফর্ম করকে পারবে নেইমার।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *