হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলায় ৪ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড

ঢাকা (Dhaka) বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হুমায়ুন আজাদ (Humayun Azad) হত্যা মামলায় ৪ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ দিল আদালত। ১৮ বছর আগে ২০০৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি রাতে একুশের মেলা থেকে ফিরছিলেন তিনি। সেই সময়ই তাঁর উপরে চড়াও হয় দুষ্কৃতীরা। ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাঁকে জখম করা হয়। কয়েক মাস চিকিৎসার পর অগস্টে গবেষণার জন্য জার্মানিতে যান এই লেখক। ওই বছর ১২ অগস্ট মিউনিখে নিজের ফ্ল্যাট থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর মামলাটি হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হয়। অবশেষে সেই মামলায় রায় দিল আদালত। অভিযুক্ত ৪ জনই জামাত-উল-মুজাহিদিন বাংলাদেশের (JMB) সদস্য। তাদের নাম মিজানুর রহমান ওরফে মিনহাজ, আনোয়ারুল আলম ওরফে ভাগ্নে শহিদ, সালেহিন ওরফে সালাহউদ্দিন ও নূর মোহাম্মদ ওরফে শামিম।

২০০৯ সালের ৭ অক্টোবর আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্যে দিয়ে মামলার বিচার শুরু হয়। এই মামলার পাঁচ আসামির মধ্যে একজন বেঁচে নেই। তার নাম হাফিজ মাহমুদ। বাবার খুনের বিচার চেয়ে আদালতে সাক্ষ্য দেন হুমায়ুন আজাদের মেয়ে মৌলি আজাদ। সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে এখনও পলাতক সালেহিন ও শামিম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − three =