তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে ৩২ ঠিকা শ্রমিকের কাজ হারানোর দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদন, কাঁকসা: এবার কর্মহীন হয়ে পড়লেন কাঁকসার রাজবাঁধ চটি সংলগ্ন রাষ্ট্রায়ত্ত্ব তেল সংস্থার বটলিং প্ল্যান্টের ৩২ জন ঠিকা শ্রমিক। বুধবার ঠিকা শ্রমিকরা প্ল্যান্টের গেটের সামনে তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের ঝান্ডা হাতে নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্ব¨েµর জেরেই তাঁদের কাজ গিয়েছে বলে অভিযোগ ঠিকা শ্রমিকদের।
শ্রমিকদের অভিযোগ, তাঁরা এদিন সকালে কাজে যোগ দিতে গেলে যে ঠিকা সংস্থার অধীনে তাঁরা চাকরি করেন, সেই ঠিকা সংস্থার আধিকারিক তাঁদের আর কাজে নেওয়া হবে না বলে জানানোর পরই শ্রমিকরা একজোট হয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। তাঁদের অভিযোগ, তাঁরা তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের সক্রিয় কর্মী। গত ৩ বছর ধরে তাঁরা ওই বটলিং প্ল্যান্টে কাজ করেন। দু’ বছর আগেই তৃণমূলের এক নেতা একই ভাবে তাঁদের কাজ থেকে বার করে দিয়েছিলেন। পরে বিষয়টি তাঁরা পুলিশকে লিখিত ভাবে জানানোর পর তাঁদের পুনরায় কাজে নেওয়া হয়।
তাঁদের দাবি, ফের দলেরই কারও হুকুমে ফের তাঁরা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। কাজ না পেলে তাদের সংসার চালাতে সমস্যায় পড়তে হতে পারে। তাই যতদিন না তাঁদের পুনরায় কাজে যোগদান করানো হবে, ততদিন তাঁরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। অন্যদিকে যে বেসরকারি ঠিকা সংস্থার অধীনে তাঁরা কাজ করতেন সেই ঠিকা সংস্থার এক আধিকারিকের দাবি, কাঁকসা ব্লকের তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের ব্লক সভাপতি চন্দন রায় তাঁকে ওই শ্রমিকদের সরিয়ে তাঁর বদলে নিজের অনুগামীদের কাজে নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়ার পরেই তিনি ওই ৩২ জনকে ছাঁটাই করেছেন। যদিও এই বিষয়ে চন্দন রায়কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি ফোনে দাবি করেন, শ্রমিকরা তাঁকে এই বিষয়ে কিছুই জানাননি। বিষয়টি তিনি খোঁজ নিয়ে জানাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *